সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

আজ বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও বিভিন্ন কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হল সন্ধানী চমেক ইউনিটের ৪০ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। মানব সেবার ব্রত নিয়ে ১৯৮২ সাল থেকে ৪০ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির চমেক ইউনিট যার পুরস্কারস্বরুপ ঝুলিতে যোগ হয়েছে স্বাধীনতা পদকসহ নানান সম্মাননা পদক। দিবসের প্রধান কর্মসূচি হিসেবে সন্ধানী চমেক ইউনিটের কার্যালয়ে কেক কাটার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়। 

এতে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামীম আহসান, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার, উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. হাফিজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইউরোলজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. মনোয়ার উল হক (শামীম) সহ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগের সম্মানিত বিভাগীয় প্রধান ও শিক্ষকমণ্ডলী। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টা ডা. এ ইউ এম সলিমুল্লাহ, সন্ধানী চমেক ইউনিটের উপদেষ্টা ডা. রেজাউল হক টিপু, উপদেষ্টা ডা. শুভ্র প্রকাশ দত্ত, উপদেষ্টা ডা.মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন, উপদেষ্টা ডা. তারেক ইমাম জেমস, উপদেষ্টা ডা. বিবেক দেব, উপদেষ্টা ডা. রিপন কান্তি দাস, উপদেষ্টা ডা.ইমরুল হাসান, ডা. নাজমুস সাকিব, উপদেষ্টা ডা. তানজিমুল হাই রাফি, উপদেষ্টা ডা. আফিয়া তাসনিম, উপদেষ্টা ডা. আরাফাত হোসেন । 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামীম আহসান, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার, উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. হাফিজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইউরোলজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. মনোয়ার উল হক (শামীম), সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের উপদেষ্টা ডা. রেজাউল হক টিপু।অতিথিরা তাদের বক্তব্যে সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের সোনালী অতীতের স্মৃতিচারণ করে সন্ধানীর সকল কার্যক্রমের জন্য ধন্যবাদ জানান এবং সন্ধানী চমেক ইউনিটের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন। শিক্ষাজীবনের চরিত্র গঠনের মাধ্যম হিসেবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার পাশাপাশি সন্ধানীসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন গুলোতে কাজ করার পরামর্শ দেন। 

স্বেচ্ছায় রক্তদান ও রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণকে কেন্দ্র করে প্রতিষ্ঠিত সন্ধানী এখন কাজ করে চলেছে বিভিন্ন সামাজিক দুর্যোগে এবং বিভিন্ন প্রয়োজনে।সন্ধানীর অন্যান্য কার্যক্রম গুলোর মধ্যে রয়েছে রক্তের গ্রুপ নির্ণয়, টিকাদান কর্মসূচি , মরণোত্তর চক্ষুদানে উদ্বুদ্ধকরণ, দুস্থ-অসহায়-গরীব রোগীদের বিনামূল্যে ঔষধ ও অপারেশন সরঞ্জাম সরবরাহকরণ, বিনামূল্যে থ্যালাসেমিয়া স্ক্রিনিং পরীক্ষা, জনসাধারণকে রক্তদানে উৎসাহিত করা ও জনসাধারণের মাঝে স্বাস্থ্য সচেতনা বৃদ্ধি প্রকল্প ও অন্যান্য সমাজকল্যাণমূলক কার্যক্রম অন্যতম। ৪০ বছরের সুদীর্ঘ পথ পরিক্রমায় সন্ধানী অসহায় মানুষের পাশে সবসময় থেকে মানুষের কল্যাণে কাজ করে আসছে। সন্ধানীর সাথে যুক্ত সকল চিকিৎসক শিক্ষক-শিক্ষিকা, আজীবন সদস্য,উপদেষ্টামন্ডলী, সন্ধানীয়ান,রক্তদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • সন্ধানী চমেক ইউনিটের উদ্যোগে চালু হয়েছে জরায়ুমুখ ক্যান্সার (Cervical cancer) প্রতিরোধক টিকা প্যাপিলোভ্যাক্স ভ্যাকসিন ও ইনফ্লুয়েঞ্জা প্রতিরোধক Influvax tetra
toggle