বিশ্ব এন্টি মাইক্রোবায়োবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ ২১

আমরা এমনই এক জাতি দুইদিনের জ্বর সর্দি কাশিতেই ডাক্তারের পরামর্শের চেয়ে পাশের ফার্মেসী দোকানদারের দেওয়া এন্টিবায়োটিকেই বেশি বিশ্বাসী । আর যদি দুই দিনেই ওষুধ সেবনে যদি সুস্থ হয়ে যায় তাহলে সেই এন্টিবায়োটিকের কোর্স সম্পন্ন করা আর প্রয়োজনই মনে করি না । আর এতেই আমরা হয়ে পড়ছি এন্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স এর শিকার । একটু সচেতনতাই পারে এর আগামী ভয়াবহতার হাত থেকে বাঁচাতে ।

তাই আজ বিশ্ব এন্টিবায়োটিক সচেতনতা সপ্তাহ’২১ উপলক্ষে Bangladesh AMR Response Alliance ও Platform এর যৌথ উদ্যোগে এবং সন্ধানী চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ইউনিটের সহায়তায় সিভাসু তে সেমিনার অনুষ্ঠিত হয় এবং এন্টিবায়োটিকের যথাযথ ব্যবহার বিষয়ে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সিভাসু , ফয়েসলেক, একে খান , অলংকার, বড়পুল, আগ্রাবাদ, বারিক বিল্ডিং, জিইসি, ২নং গেইট , মুরাদপুর, বহদ্দারহাট, চকবাজার, জামাল খান, আন্দরকিল্লা, সিনেমা প্যালেস , নিউমার্কেট, টাইগারপাস , দেওয়ানহাট এলাকায় মোটিভেশন প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়। প্রোগ্রামের মাধ্যমে জনসাধারণের মাঝে এন্টিবায়োটিক সচেতনতা সংক্রান্ত লিফলেট ও স্টিকার বিতরণ করা হয়।


অংশগ্রহণেঃ
৫৯ তম প্রজন্মঃ রোমান, আরাফাত
৬০ তম প্রজন্মঃ তাহিয়্যা , নাহিন , লাবণ্য , আসিফা
৬১ তম প্রজন্মঃ কেয়া, জিম, মাজেদ, তাহের, সাফা , ইভা, নিলয়, মিম, রাইসা,জেরিন, আইবী, উপমা, রাহাত , অর্পা
৬২ তম প্রজন্মঃ মোহনা

অযথা, অপর্যাপ্ত ও অপ্রয়োজনীয় এন্টিবায়োটিক গ্রহণ এবং এন্টিবায়োটিক কোর্স নিয়ম না মেনে এন্টিবায়োটিক গ্রহণের ফলে এন্টিবায়োটিক প্রতিরোধী জীবাণু তৈরী হয় যার বিনাশ প্রচলিত এন্টিবায়োটিক দ্বারা সম্ভব হয়না। আসুন সচেতন হই, নিজেকে ও নিজের পরিবার কে সুরক্ষিত রাখি |

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • এ মুহুর্তে যথেষ্ট পরিমাণ রক্ত মজুদ আছে
  • সন্ধানী চমেক ইউনিটের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের যাত্রা শুরু
  • নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে নতুনভাবে নিয়মিত ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু
  • সকল শুভানুধ্যায়ীকে ঈদ-উল-ফিতরের শুভেচ্ছা "ঈদ মোবারক"
toggle